১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৫:৩০

গজারিয়ায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন বাধার মুখে তিতাস কর্তৃপক্ষ–

নেয়ামুল হক নয়ন গজারিয়া প্রতিনিধি:
গজারিয়ায় তিতাস গ্যাস অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্নের অভিযান চালিয়ে প্রায় ৪৫০ টি পরিবারের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও প্রায় ১শত বিশ মিটার ব্যবহৃত (২ ইঞ্চি ব্যাসার্ধ) গ্যাস সংযোগের পাইপ লাইন উচ্ছেদ করে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি।
১৪ জুলাই বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার জামালদীর সংযোগ সড়ক হইতে বড়-ভাটেরচর বেইলি ব্রিজএলাকায়
এই অভিযান পরিচালনা করেন যৌথভাবে রাইজার টিম তিতাস ও সোনারগাঁও জোনাল অফিস এবং গজারিয়া থানা পুলিশ।
তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সূত্রে জানা যায় হোসেন্দী ইউনিয়নের অন্তর্গত জামালদি সংযোগ সড়ক হামদার্দ বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতাল গেইট সংলগ্ন পয়েন্ট  হইতে টেংগারচর ইউনিয়নের বড় ভাটেরচর এলাকার প্রায় ৪৫০টি অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়। ভেইলি ব্রিজের উপর দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় গ্যাসের পাইপ সংযোগ থাকায় যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ অভিযানে অবৈধ লাইনের ১শত ২০ মিটার পাইপ অপসারণ ও  অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়।
তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নের সময় টেংগার চর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাহফুজুর রহমান রিপন ও আবু তাহের, পিতা: ইসমাইল গং দের নিয়ে অভিযানকারীদের বিভিন্নভাবে হয়রানি ও বাধা প্রদান করতে থাকে।
অভিযানের সংবাদ পেয়ে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিতি হলে ইউপি সদস্য মাহফুজুর রহমান রিপন অভিযান এলাকা হতে সরে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন প্রকার প্রস্তাব দিতে থাকে।
তিতাস রাইজার টিম ও জোনাল অফিস কোন প্রকার বাধা উপেক্ষা করে যথাযথ প্রক্রিয়ায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ব্যবহৃত গ্যাস পাইপ নিয়ে যায়।
এসময় তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সোনারগাঁও জোনাল অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী নাজমুল হাসান জানান, যারা অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ গ্রহণ করেছেন এবং যারা গ্রামের সাধারণ মানুষকে গ্যাসের প্রলোভন দেখিয়ে অনাকাংক্ষিত ভয়াবহ গ্যাস দুর্ঘটনার দিকে ঠেলে দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তিনি আরো বলেন এখন থেকে উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে নিয়মিতভাবে অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে।