২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ভোর ৫:০২

মগবাজারের ‘সেই’ ময়লার ড্রামে বিস্ফোরক ছিল: ডিএমপি

রাজধানীর মগবাজার ওয়ারলেস মোড়ে বিস্ফোরিত ময়লার ড্রামে বিস্ফোরক জাতীয় ‘কিছু একটা’ ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ কারণেই ড্রামটি বিস্ফোরিত হয়।

তবে তাতে ঠিক কী ধরনের বিস্ফোরক ছিল পুলিশের বোম ডিসপোজাল ইউনিট সেটা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে।
মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিট পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. শহিদুল্লাহ এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, সকালের দিকে প্লাস্টিকের ময়লার ড্রাম বিস্ফোরণের ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এরপর সেখানে বোম ডিসপোজাল ইউনিট কাজ করেছে। তবে প্রাথমিকভাবে এটা প্রতীয়মান হয়েছে যে, ড্রামের ভেতরে কোনো বিস্ফোরক জাতীয় জিনিস ছিল। এ কারণেই তাতে বিস্ফোরণ হয়েছে। তবে ড্রামের মধ্যে ঠিক কোন ধরনের বিস্ফোরক ছিল বোম ডিসপোজাল ইউনিট সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে।

এছাড়া তিনি জানান, ময়লা রাখার বড় প্লাস্টিকের ড্রামটি হচ্ছে বাড়ির মালিকের। মঙ্গলবার সকালে তার নির্দেশনা অনুযায়ী ঘটনাস্থলের পাশের একটি ভাঙারি দোকানের কর্মচারী আতিকুল ইসলাম আকিল (১৭) ড্রামটি হাত দিয়ে ধরে সরানোর সময় সেটা বিস্ফোরিত হয়। এতে ওই কিশোর আহত হয়ে শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিচ্ছে।

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া জানান, মগবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনায় আহত চারজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। এছাড়া একই ঘটনায় আহত ভাঙারি দোকানের কর্মচারী আকিল এখনো বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিচ্ছে। তবে সেও শঙ্কামুক্ত।