১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১১:৪৯
শিরোনাম:

নারায়ণগঞ্জের গম জসিমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জের মেসার্স জসিম ট্রেডার্স ও মেসার্স জিয়া এন্টারপ্রাইজের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দকৃত গম দুর্নীতির মাধ্যমে নিজ প্রতিষ্ঠানের নামে ক্রয় দেখিয়ে বাজারে অধিক মূল্যে বিক্রির অভিযোগ সহ ক্রো একাধিক অভিযোগ উঠেছে। আর অনৈতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে প্রায় ৫০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে।

দুদকে দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জসিম ট্রেডার্স ও মেসার্স জিয়া এন্টারপ্রাইজের মালিক জসিম উদ্দিন মৃধা ওরফে গম জসিম একজন আমদানিকারক এবং পরিবেশক হিসেবে পরিচিত। শস্য (গম) আমদানিকারক হিসেবে তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের অসাধু বাক্তিদের সাথে পরিচিত থাকায় কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দকৃত নিজ প্রতিষ্ঠানের নামে ক্রয় দেখিয়ে বিপুল অংকের অর্থ আত্মসাৎ করছে। এতে যেমন গমের বাজার প্রতিনিয়ত অস্থিতিশীল হতে ভূমিকা রাখছে তেমনি সরকার বিপুল অংকের রাজস্ব হারাচ্ছে। এই জসিম ওরফে গম জসিমের দুই পুত্র জিয়াউদ্দিন মৃধা ও জিন্তু মূর্ধা বাবার এই ব্যবসায় জড়িত। এছাড়াও জসিমের বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও ব্যাংক হিসাবের অস্বাভাবিক লেনদেনের অভিযোগ রয়েছে।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ তারা পেয়েছেন। ইতিমধ্যে তা আমলে নিয়ে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। দুদক সূত্র জানায় মেসার্স জসিম ট্রেডার্স ও মেসার্স জিয়া ট্রেডার্সের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু হয়েছে। ব্যাংক হিসাব লেনদেন সহ সকল অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চলছে। শীগ্রই দুদক কার্যালয়ে তলব করা হবে ।