২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১২:২৬
শিরোনাম:

ভুমিদস্যু আকতারুজ্জামানের বিচার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট ইসিবি চত্বর, মানিকদী, মাটিকাটা ও ভাষানটেক এলাকার ‘অনলাইন গ্রুপের এমডি খান মো. আকতারুজ্জামানের বিরুদ্ধে জমি দখল, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ উঠেছে। জাল দলিলের মাধ্যমে প্রয়াত মন্ত্রী সাহারা খাতুনের ২ একর জমিও দখল করেছেন এই আকতারুজ্জামান। আকতারুজ্জামনের ক্যাডার বাহিনীর সদস্যরা হলেন- আলামিন, হবি, চঞ্চল, আজাদ, বাবুল, মামুনসহ আরো অনেকে। দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা চলে আসেলেও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করায় স্থানীয়দের মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে। ভুক্তভোগিরা অবিলম্বে এই ভুমিদস্যুর কবল থেকে বাঁচার আকুতি জানিয়েছন।

জানা গেছে, ওই এলাকায় ভূমিদস্যু আখতারের কালো থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছে না কেউ। ইসিবি চত্বরে তার ক্যাডার বাহিনী দখলের এক মহোৎসবে নেমেছে। তার কোম্পানির বাইরে কেউ এক ইঞ্চি কাজ করতে হলেও তার অনুমতি নিয়ে কাজ করতে হয়। এছাড়া সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনের প্রায় দুই একর জমি জাল দলিলের মাধ্যমে দখলে নিয়েছেন আকতারুজ্জামান। এই জমিটি কয়েক পুরুষ ধরে তাদের দখলে ছিল। কিন্তু ভুয়া দলিল করে জমিটি ইতোমধ্যে দখলে নিয়েছে অনলাইন গ্রুপ। এ নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। সাহারা খাতুনের মৃত্যুর পর আকতারুজ্জামান জমিটি দখল করে নেন। তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলেই হামলা, মামলা শুরু হয়ে যায় ।

স্থানীয়রা জানান, মাটিকাটা ইসিবি চত্বর থেকে শুরু করে কালশী পর্যন্ত ১৫০ ফুট রাস্তার দুই পাশে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রয়াত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনের দুই একর সম্পত্তিসহ অনেক নিরীহ মানুষের সম্পত্তি দখল করে মার্কেট নির্মাণ করেছেন আকতারুজ্জামান। মানিকদী, ভাষানটেক ও মাটিকাটা এলাকায় দখলকৃত জমি উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।