১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৩৪

পাঠাও চালককে গলাকেটে হত্যা, মোটরসাইকেল ছিনতাই

রাজধানীর মালিবাগ ফ্লাইওভারের তৃতীয় তলায় মিলন (৩৫) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যা করে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মিলন অ্যাপসভিত্তিক রাইড শেয়ারিং ‘পাঠাও’য়ের চালক ছিলেন। দুই সন্তানের জনক মিলন পরিবারের সঙ্গে মিরপুর-১ গুদারাঘাট এলাকায় থাকতেন। ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার দুপুরে শাহাজানপুর থানার (এসআই) আতিকুর রহমান বলেন, গুরুতর অবস্থায় মিলনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তার গলায় সাতটি সেলাই দেন। পরে চিকিৎসকদের নির্দেশে মিলনকে হৃদরোগ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোর ৬টার দিকে মারা যান মিলন।

তিনি আরও বলেন, রবিবার রাত ২টা ১২ মিনিটের দিকে মিলনের সঙ্গে তার এক বন্ধুর মুঠোফোনে কথা হয় এবং মিলন তাকে জানায়, সে মালিবাগ সিআইডি অফিসের সামনে প্যাসেঞ্জার নিয়ে মোটরসাইকেল চালিয়ে যাচ্ছে।

এসআই আতিকুর রহমান বলেন, রাতে রাস্তাঘাট ফাঁকা থাকায় নিরাপত্তা বিষয়ে ঝুঁকি থাকে ফ্লাইওভারে। এরপরও যাত্রী নিয়ে মিলন ফ্লাইওভারের তৃতীয় তলায় উঠায় এ ঘটনার সূত্রপাত ঘটতে পারে। সব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পাঠাও অফিসে তথ্যের বরাতে তিনি আরও বলেন, মিলনের লাস্ট কল ছিল ৭ আগস্ট। হয় এর মাঝে সে পাঠাও চালায়নি অথবা চালিয়ে থাকলেও অ্যাপস ছাড়াই যাত্রী পরিবহন করেছে। ঘটনার পর ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটিও উধাও। ধারণা করা হচ্ছে, যাত্রীবেশে ছিনতাইকারী তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে মোটরসাইকেলটি নিয়ে পালিয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। সব বিষয়ে আমরা তদন্ত করে দেখছি।

মৌচাক-মালিবাগ ফ্লাইওভারে সিসি ক্যামেরা আছে কি না, সেগুলো যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান এসআই আতিক।