১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:১১
শিরোনাম:

শেখ হাসিনাকে সরিয়ে তারেককে ক্ষমতায় বসাতে ঐক্যফ্রন্ট করিনি : কাদের সিদ্দিকী

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হলেও একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে এটির লাগাম বিএনপির হাতে চলে গিয়েছিল বলে দাবি করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে সরিয়ে তারেক রহমানকে ক্ষমতা বসানোর জন্য আমি রাজনীতি করি না। এজন্য ঐক্যফ্রন্ট থেকে আমার দলকে প্রত্যাহার করে নিয়েছি।’

সোমবার (২৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীতে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে এ সভার আয়োজন করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, নিশ্চয়ই খালেদা জিয়া এদেশের অন্যতম জাতীয় নেতা। কিন্তু তারেক রহমান নেতা নয় বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘গত একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সবকিছুতে তারেক রহমান নেতৃত্ব দিচ্ছিলো। যেহেতু ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব কামাল হোসেনের হাতে ছিল না, তাই জোট থেকে আমরা নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছি।’ তবে তিনি নিজেকে কামাল হোসেনের ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত করতে পারেন বলে মন্তব্য করেন কাদের সিদ্দিকী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই বিএনপিকে বাঁচিয়ে রেখেছেন মন্তব্য করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি আরও বলেন, “তিনি (শেখ হাসিনা) সারাদিন ‘বিএনপি’ বলে চিৎকার করে আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী করে রেখেছেন। এটা তিনি নিজের স্বার্থে করে রেখেছেন।’ এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘বিএনপি না থাকলে শেখ হাসিনা থাকবেন না। তার রাজনীতিও থাকবে না।’

শেখ হাসিনা সারাদিন ‘বিএনপি’ বলে চিৎকার না করলে আজকে দলটির যে অবস্থা তার চার ভাগের একভাগ হয়ে যেতো বলেও মন্তব্য করেন কাদের সিদ্দিকী।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন, জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠিাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।