১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:৩২
শিরোনাম:

বিশাল ক্ষতির মুখে প্রভাস!

বক্স অফিসে প্রভাসের ‘সাহো’র শুরুটা বেশ ভালো ছিল। কিন্তু বিশাল বাজেটের এই ছবি এখন বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ছে। আর এতে অনেক বড় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে যাচ্ছেন প্রভাস।

প্রভাস ‘সাহো’ ছবির জন্য এক রুপিও পারিশ্রমিক পাননি। উল্টো ছবির প্রযোজক যখন মার্কেটে থেকে অনেক বড় অঙ্কের টাকা ঋণ করেছেন, তখন প্রভাস প্রায় ৫০ কোটি রুপির গ্যারান্টর হয়েছেন। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস থেকেই এই ঝুঁকি নিয়েছেন তিনি। ভেবেছিলেন ছবি ভালো ব্যবসা করবে। কিন্তু বক্স অফিসে ‘সাহো’র অবস্থা ভালো না হওয়ায় বিপদে পড়ার আশঙ্কায় প্রভাস।

সুদে-আসলে প্রভাসকে প্রায় ৭৮ কোটি রুপি অর্থ দিতে হতে পারে। এই বিশাল অঙ্কের অর্থ শোধ করতে প্রভাসের কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করতে হবে। আর্থিক ক্ষতি সামাল দিতে ইউভি প্রোডাকশনও তাদের কিছু প্রোপার্টি বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ভারতের ৫-৬হাজার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘সাহো’। ছবিটি শুধুমাত্র হিন্দিতেই মুক্তি পেয়েছে প্রায় সাড়ে তিন হাজার প্রেক্ষাগৃহে। সেই সাথে বিশ্বের অন্যান্য দেশের এক থেকে দুই হাজার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সাহো’ ছবির বাজেট প্রায় ৩৮০ কোটি রুপি। ২০১৯ সালের বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ছিল ‘সাহো’। প্রভাস ও শ্রদ্ধা কাপুরের জুটি এবং দুর্দান্ত অ্যাকশন দৃশ্যের ট্রেলার দেখিয়ে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক উন্মাদনা সৃষ্টি করেছিলেন এর নির্মাতা। কিন্তু এত কিছুর পরেও ‘সাহো’ হতাশ করেছে দর্শক-সমালোচকদের। -বলিউড মাসালা