১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৫:২২
শিরোনাম:

দুর্নীতিবাজরা দলের হলেও ছাড় পাবে না: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

দুর্নীতিবাজদের হুঁশিয়ার করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দুর্নীতি-অনিয়ম ও উচ্ছৃঙ্খলতায় জড়িত থাকলে দলের লোকদেরও ছাড় দেওয়া হবে না। তিনি বলেন, দুর্নীতি না হলে দেশে আরও বেশি উন্নয়ন হতো। কারা, কিভাবে সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প ক্ষতিগ্রস্ত করছে, তাদের খুঁজে বের করা হবে।

শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নিউ ইয়র্কের ম্যারিয়ট মারকুইজ হোটেলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি একটা কথা স্পষ্ট করে বলতে চাই, অনিয়ম, উচ্ছৃঙ্খলতা বা অসৎ কাজ করে কেউ যদি ধরা পড়ে, তবে সে যেই হোক না কেন, আমার দলের হলেও ছাড় দেওয়া হবে না, এর বিরুদ্ধে আমাদের ব্যবস্থা অব্যহত থাকবে।

তিনি বলেন, আমরা যেই পরিমাণ উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ করছি, তার প্রতিটি টাকা যদি সঠিকভাবে ব্যয় বা ব্যবহার হতো তাহলে আজকে বাংলাদেশ আরও অনেক বেশি উন্নত হতো। এখন আমাকে খুঁজে বের করতে হবে কোথায় ঘাটতি রয়েছে, কারা কোথায় কীভাবে এই জায়গাটা ক্ষতিগ্রস্ত করছে।

দুর্নীতি, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরদ্ধে কঠোর অবস্থানের কথা তুলে ধরেন শেখ হাসিনা বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যহত থাকবে। যারা যারা এর সঙ্গে যুক্ত আছে আমরা খুঁজে বের করবো। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক নির্মূল করে বাংলাদেশের মানুষকে আমরা উন্নত জীবন দিতে চাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নতি হয় এবং জনগণ উন্নত জীবন লাভ করে বলেই আওয়ামী লীগের ওপর জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস আছে। এত উন্নয়নের পরও দেশে ‘একশ্রেণির বুদ্ধিজীবী পরশ্রীকাতর’ আচরণ করে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নে যত ভালো কাজই করা হোক, তারা কখনোই ভালো বলবে না। সেই ‘বুদ্ধিজীবীদের’ বিএনপি-জামায়াতের সময়কার সন্ত্রাস, দুর্নীতির কথা মনে করিয়ে দেন তিনি।

এসময় প্রধানমন্ত্রী দেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদানের কথা তুলে ধরে তাদের আরও বেশি বিনিয়োগের আহ্বান জানান।