৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:৪১

দর্শকদের উদ্দেশ্যে যা বললেন সাপলুডুর পরিচালক গোলাম সোহরাব দোদুল

‘সাপলুডু’ সিনেমাটি মুক্তির তৃতীয় দিন আজ। গেল শুক্রবার সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে গোলাম সোহরাব দোদুল পরিচালিত এই সিনেমা। এখন পর্যন্ত বেশ হলে বেশ ভালই চলছে তারকাবহুল সিনেমাটি। নির্মাতার গল্প বলার দক্ষতা প্রথম দৃশ্য থেকে শেষ দৃশ্য পর্যন্ত দর্শকদের বসিয়ে রাখতে সক্ষম হয়েছে। হল থেকে বেরিয়ে এক বাক্যে ‘ভালো হয়েছে’ বলেও মন্তব্য করছেন অনেকেই।

প্রথম সিনেমাতে চমক দেখিয়েছেন পরিচালক। এর সিনেমাটোগ্রাফি ও নির্মাণশৈলীর প্রশংসা করছেন সিনেমা বোদ্ধারা। এতে অভিনয় করেছেন আরেফিন শুভ, বিদ্যা সিনহা মিম, তারিক আনাম খান, জাহিদ হাসান, সালাহউদ্দিন লাভলু, শতাব্দী ওয়াদুদ, রুনা খান, মারজুক রাসেল, ইন্তেখাব দিনার, শাহেদ আলী, নিকুল মণ্ডলসহ আরও অনেকে।

চট্টগ্রাম বিভাগের এক আদিবাসী গ্রামের হামলাকে কেন্দ্র করে এগিয়ে যায় ‘সাপলুডু’ সিনেমার গল্প। এলাকার এমপি আহসানউল্লাহর চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান। এমপি’র ভাই ইরফানের চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান ও কেন্দ্রীয় চরিত্র আরমানের ভূমিকায় রয়েছেন আরেফিন শুভ।

বাবা হারা তরুণী পুষ্পর চরিত্রে দেখা যায় বিদ্যা সিনহা মিমকে। সিনেমাটিতে শুভ-মিমের প্রেমের রসায়ন পছন্দ করেছেন দর্শক। বিশেষভাবে দর্শকের নজর কেড়েছের সালাহউদ্দিন লাভলু। পুলিশের এডিসি চরিত্রে অভিনয় করে তিনি যেমন সাসপেন্স তৈরি করেছেন একের পর এক দৃশ্যে তেমনি হাসিয়েছেনও সবাইকে। সবমিলিয়ে ক্ষমতার সাপলুডু খেলায় আসলে কে জেতে? সেটা জানা যায় সিনেমার শেষে। হলে গিয়েই দেখতে হবে সেটি।

সাপপুডু সিনেমা নিয়ে গোলাম সোহরাব দোদুল বলেন, ‘আমার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত সাপলুডু চলচ্চিত্রে আপনাদের ভালোবাসা দেখে আমি মুগ্ধ। প্রথম চলচ্চিত্র নিয়ে প্রতিটি পরিচালক যেমন ভয়ে থাকে আমার ভয়টাও ঠিক তেমন ছিল। আনকাট সেন্সর পাওয়া এবং সেখান থেকে ভূয়সী প্রশংসার পর একটা বিশ্বাস এসেছিল হয়তো কিছু একটা বানাতে পেরেছি।

তবে ভয় ছিল, সাধারণ দর্শকদের নিয়ে, কেমনভাবে গ্রহণ করবে তারা। প্রথম দিনের পরই আমার ভয়টা শাক্তিতে পরিণত হয়েছে। আপনাদের এতো রেসপন্স দেখার পর আসলে আমার বিশ্বাস আমি কিছুটা হলেও সফল হয়েছি।

সাধারণ মানুষের ভালো লাগাটাই আমার কাছে সব কিছু। যাদের খারাপ লেগেছে তাদের কাছেও আমি কৃতজ্ঞ। সবাই মত প্রকাশের অধিকার রাখেন, আপনার ভালো লাগা খারাপ লাগা বলবেন অবশ্যই। তবে একদম স্পয়লার দিবেন না এটাই অনুরোধ।

আপনাদের সমালোচনা আমার পরবর্তী কাজকে আরো বেশি নিখুঁত করার শক্তি হিসাবে কাজ করবে। আশা করছি সাপলুডু অনেক বড় পরিসরে আপনাদের সামনে হাজির হবে। কারণ কাজ এখনো শেষ হয়নি, এটা কেবল শুরু। সাপলুডু আলোচনা দেশব্যাপী ছড়ানো হবে অন্যতম লক্ষ্য।

প্রথম চলচ্চিত্রের রোমাঞ্চকর অনুভূতি দেবার জন্য আপনাদের আবারো ধন্যবাদ। যারা যারা দেখেননি তাদের কাছে অনুরোধ ভালো খারাপ যাচাই করার জন্য হলেও সাপলুডু দেখুন।আলোচনা করুন। আপনাদের সমালোচনা আমার দৃষ্টিভঙ্গি পরিমার্জন করতে সহায়তা করবে।’

দেশের ৪২টি সিনেমা হলে চলছে সাপলুডু। নির্মাতা জানালেন, আগামী ১২ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ায় সিডনির হোয়াইট ব্যাংকসটাউন সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। ব্যাংকসটাউনে প্রদর্শনের পরে মেলবোর্ন , ব্রিসবেন ও অ্যাডিলেডেও প্রদর্শনের কথা চলছে।