১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:০১
শিরোনাম:

প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে উপজেলা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতির শিপন আলীর আত্মহত্যা

বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শিপন আলী (২৫) আত্মহত্যা করেছেন। তিনি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের দুর্যাকাপন গ্রামের ফজর আলীর ছেলে। সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলা সদরের টিএনটি রোডস্থ একটি বাসায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা যায়। প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য জানান, শিপন আলী সোমবার রাতে এক বন্ধুর বাসায় খাবার খেয়ে উপজেলা সদরের টিএনটি রোডস্থ তার বোনের বাসায় চলে যান। বোনের বাসা ফাঁকা থাকায় রাতে তিনি সেখানে অবস্থান করেন এবং মোবাইল ফোনে তার প্রেকিকার সঙ্গে কথা বলতে থাকেন। একপর্যায়ে তিনি গলায় কাপড় পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

রাত সাড়ে ১১টায় একটি অপরিচিত নাম্বার থেকে তার ভাই লিটনকে একটি মেয়ে ফোন করে বলেন শিপন আত্মহত্যা করেছেন। এই খবরটি সঙ্গে সঙ্গে লিটন তার পরিবারের সদস্যদের জানান। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজনদের সহযোগিতায় পুলিশ বাসার দরজা ভেঙে শিপনকে উদ্ধার করে। এরপর তাকে সিলেট নর্থ-ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ধারণা করা হচ্ছে প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামীম মূসা বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে লাশ পাঠানো হয়েছে। আত্মহত্যার সঠিক কারণ এখনো জানা যায়নি।