৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ২:১৯

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে সিপিএলে ফের সাকিব ঘূর্ণি

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) টানা দুই জয়ে লিগের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে সাকিব আল হাসানের বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। সবশেষ বৃহস্পতিবার ভোরে তারা ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে। এ ম্যাচে ব্যাট হাতে খুব একটা সুবিধা করতে না পারলেও বল হাতে জাদু দেখিয়েছেন বাংলাদেশ দলপতি।

পোর্ট অব স্পেনে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ত্রিনবাগো অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই সাকিবদের তোপের মুখে পড়ে ত্রিনবাগো। বোলিংয়ে সূচনা করতে এসে ৫ বলেই উইকেটের দেখা পান সাকিব। ১ রানেই জেমস নিশামকে ফিরিয়ে দেন তিনি।

দ্বিতীয় উইকেটে লেন্ডল সিমন্সকে নিয়ে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ওঠেন কলিন মনরো। পরে ছন্দময় ব্যাটিংয়ে ত্রিনবাগোকে বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দেন তারা। তবে এ জুটি বিচ্ছিন্ন হতেই পথ হারায় দলটি। বাকি সময়ে যাওয়া-আসার মধ্যে থাকেন পোলার্ডরা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৩৪ রান সংগ্রহ করে ত্রিনবাগো। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬০ রান করেন সিমন্স, যাকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানান সাকিব। বার্বাডোজের হয়ে সাকিব ছাড়াও দুটি করে উইকেট নেন হ্যারি গার্নি ও হেইডেন ওয়ালশ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে বার্বাডোজ। উদ্বোধনী জুটিতে ৫৪ রান তুলে দলকে জয়ের রাস্তায় রাখেন জনসন চার্লস ও অ্যালেক্স হেলস। হেলস ৩৩ রানে ফিরলেও ৪৭ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন চার্লস। তিনে ব্যাট করতে নেমে ১৪ বলে ১৩ রান করেন সাকিব। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট ও ২ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে নোঙর করেন জেসন হোল্ডার বাহিনী। বাকি কাজটুকু সারেন জেপি ডুমিনি ও অ্যাশলে নার্স। ডুমিনি ১৮ ও ১০ রানে অপরাজিত থাকেন নার্স।

৮ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স। আর ১০ ম্যাচে পাঁচ জয় ও সমান হারে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে সাকিবের বার্বাডোজ।