১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:৪৪
শিরোনাম:

পূজামণ্ডপে ময়লা পরিষ্কার করলেন মেয়র আতিক

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার দুর্গাপূজায় পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে এসে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি ছাড়া নিজের উদ্যোগেই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার প্রতীকী এই অভিযান চালালেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। সেখানে থাকা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন মেয়র। সূত্র: সারাবাংলা

শনিবার (৫ অক্টোবর) রাতে এ অভিযান চালান মেয়র আতিকুল।

এ সময় তিনি বলেন, ‘আধুনিক, পরিচ্ছন্ন ও বাসযোগ্য সুন্দর ঢাকা গড়ে তুলতে হলে সবাইকে একসঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যেতে হবে। নগরের সার্বিক উন্নয়নে আমি জনগণের সহযোগী হিসেবে পাশে থাকতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে সকল ধর্মের অনুসারীদের মধ্যে যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক আছে তা বজায় থাকবে এবং আমরা সবাই মিলে গড়ে তুলব জাতির পিতার স্বপ্নের অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ যে লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন।’

মেয়রের এমন উদ্যোগ প্রশংসা কুড়িয়েছে উপস্থিত সবার। বসুন্ধরা সর্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রীবাস রয় অপু এ সময় মেয়রকে পাশে রেখে উপস্থিত সবাইকে উদ্দেশ্য করে পূজা প্রাঙ্গণ পরিষ্কার রাখতে অঙ্গীকার করার কথা বলেন এবং উপস্থিত দর্শনার্থীরা হাত তুলে তাতে সাড়া দিয়ে অঙ্গীকার করেন।

পরে শ্রীবাস রয় অপু সারাবাংলাকে বলেন, ‘পূজামণ্ডপে গিয়ে গিয়ে মেয়র মহোদয় যে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি চালাচ্ছেন তা প্রশংসা যোগ্য। আমরা যদি নিজেদের চারপাশ নিজেরাই পরিষ্কার রাখতে পারি তবে বিশ্বের বুকে এই ঢাকা শহর পরিচিত হয়ে উঠবে একটি পরিচ্ছন্ন শহর হিসেবে। আর তা আমাদের সবার সচেতনতা বাড়ানো খুবই জরুরি। মেয়র মহোদয়ের এমন উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই।’

রামপুরা থেকে বসুন্ধরা এলাকার পূজো দেখতে আসা তুষার পাল বলেন, মেয়রের এমন উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। তিনি যেভাবে প্রতিটি পূজামণ্ডপে যাচ্ছেন তা নগরের বাসিন্দাদের সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির সেতুবন্ধকে আরও দৃঢ় করে তুলবে।’