৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১০:১২

আমার সোনার লক্ষ্মী বেটা কোথায় তুই গেলিরে কান্নাজড়িত কন্ঠে আবরারের মা (ভিডিও)

ছেলেকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ আবরারের মা। কাঁদতে কাঁদতে বললেন, আমার ছেলে সব রেজাল্টে মেধা তালিকায় ছিলো। সব পরীক্ষায় একশতে একশো পেতো। আমি বলি বাবা তুমি মেডিকেলে পরীক্ষা দাও কিন্তু ছেলে বলে, মা যদি মেডিকেলে চান্স না পাই? তখন আমি ছেলেকে বলি, বাবা তুমি পরীক্ষা দাও, ভাগ্যের ব্যাপার বলা তো যায় না। আমার ছেলে পরীক্ষা দেয়। চান্সও পায় মেডিকেলে। আমার ছেলে ঢাকা ভার্সিটির জেনেটিক্স ভর্তি পরীক্ষায় ১৩ তম হয়। তার খুব ইচ্ছা ছিলো জেনেটিক্সএ পড়ার।

মায়ের কাছে ঢাকা ভার্সিটির জেনেটিক্সএ পড়ার অনুমতি চায় আবরার। তখন আমি বলি, বাবা তুমি ঢাকায় চলে যাবা আমি কি নিয়া থাকবো। আমি ছেলেকে যেতে দিতে চাইনি। কিন্তু ছেলের অনেক ইচ্ছা ছিলো জেনেটিক্সএ পড়ার। ওরে আমার ছেলের মতো ছেলে কয়জনের আছেরে। আমি মনে করতাম, আমার মতো সুখী আর কেও নেই। ওরে আমার সোনার মতো বেটা কয়জনরে আল্লাহ দেয়রে। ও আমার সোনার লক্ষ্মী বেটা কোথায় তুই গেলিরে।