১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:৫৯

লেট করে বাড়ি ফিরে স্ত্রীকে ম্যানেজ করবেন যেভাবে

ঘরে ঢুকেই স্ত্রীকে বলুন, আজ তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে। স্ত্রী আপনার আগে কথা বলা শুরু করলে নির্ঘাত ফেঁসে যেতে পারেন। তাই ফাঁস লাগার আগেই মুখ ভরে তার প্রশংসা শুরু করতে পারেন। স্ত্রী যদি সন্দেহ করে বসে তখন তাকে ব্যাখ্যা করুন, তাকে আজ কেন সুন্দর লাগছে। যেমন, এই জামাটায় তোমাকে অনেক মানিয়েছে। এই রংয়ের জামায় তোমাকে সব সময়ই পরীর চেয়ে সুন্দরী লাগে… ইত্যাদি।

► ঘরে ঢুকেই স্ত্রীকে বলুন, বল, কবে শপিংয়ে যাবা? শপিংমল শুদ্ধ বাসায় নিয়ে আসতে চায় ভেবে যারা অনেকদিন স্ত্রীকে নিয়ে শপিংয়ে যাচ্ছেন না, তারা এই কৌশল অবলম্বন করতে পারেন। ভাবটা এমন হবে, যেন আগামীকাল শপিংয়ে যাবেন বলেই আজ লেট করে বাসায় ফিরেছেন। তারপর স্ত্রীকে বলুন, ঝটপট শপিংয়ের লিস্টটা করে ফেলতে। ঘটনা অন্যদিকে প্রবাহিত করে স্ত্রীর মন অন্যদিকে যত ব্যস্ত রাখা যায় এখন ততই মঙ্গল! কালকে শপিংয়ে না গিয়ে কীভাবে সামলানো যায় সেটা ভাবার জন্য পুরো রাত ও একটা দিন হাতে আছে। তাই, নো টেনশন।

► ঘরে ঢুকেই স্ত্রীকে বলুন, সারা দিন তোমার রান্নার প্রশংসা শুনতে শুনতে কেটে গেল…। স্ত্রী কবে কী রান্না করে কাকে খাইয়েছিল সেই ঘটনা মনে করে ঘরে ঢুকুন। এবার শুরু করুন চাপাবাজি। স্ত্রী এত কষ্ট করে এত ভালো রান্না করে, সেই রান্নার স্বাদ মুখে লেগে থাকে, সবাই সেই রান্নার প্রশংসায় পঞ্চমুখ… এই লাইনগুলো দিয়ে চাপা পেটানো শুরু করে যেতে পারেন। তারপর কৌশলে জেনে নিন, আজ বাসায় কী রান্না হয়েছে। ধরা যাক, রান্না হয়েছে আপনার অপন্দের কচুর লতি তরকারি। আপনি বলবেন, ইশ! তোমার হাতে কচুর লতির তরকারি কি যে স্বাদ হয়! তাড়াতাড়ি ভাত বাড়ো তো…

► ঘরে ঢুকেই স্ত্রীর পছন্দের কোনো বিষয় নিয়ে একটানা বারো মিনিট লেকচার ঝেড়ে দিন। যদি তা না পারেন তাহলে স্ত্রীকে সেই বিষয়ে লেকচার ঝাড়ার সুযোগ তৈরি করে দিন। যেমন- স্ত্রীর পছন্দ যদি কিরণমালা সিরিয়াল হয় আপনি বলবেন, অ্যাঁই, কিরণমালার রিপিট দেখায় কয়টার সময়? ইশরে মিস হয়ে গেল! কী দেখাইল আজকে? ঘটনা কী একটু বল তো?