২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১১:২১
শিরোনাম:

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি,চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়া প্রয়োজন, বললেন সেলিমা

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা হচ্ছে না, দিন দিন তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে, উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন তার বড় বোন সেলিমা ইসলাম।

শুক্রবার বেলা সাড়ে তিনটায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) ৬১২ নম্বর কেবিনে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যান তার পরিবারের ৬ সদস্য। এসময তার সঙ্গে ছিলেন ভাই শামীম ইস্কান্দারের স্ত্রী কানিজ ফাতেমা, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমানের বোন শাহিনা খান জামান বিন্দু, শামীম ইস্কান্দারের ছেলে অভিক ইস্কান্দার ও অরিক ইস্কান্দার।

সাক্ষাৎ শেষে সেলিমা ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়ার শরীরের অবস্থা আরো খারাপ হয়েছে। তিনি উঠতে পারছেন না, বসতে পারছেন না, নিজ হাতে কিছু খেতে পারছেন না। চলতে পারছেন না।শুয়ে থাকতেও তার কষ্ট হচ্ছে। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়া দরকার।আমরা তাকে বিদেশে পাঠাতে চাই।

হাসপাতালে খালেদা জিয়ার কোন চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না অভিযোগ করে সেলিমা ইসলাম বলেন, গত দুই সপ্তাহ ধরে চিকিৎসকরা তাকে দেখতে আসেননি। বিদেশে যাওয়ার বিষয়ে খালেদা জিয়া কিছু বলেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনি বিদেশে যাওয়ার বিষয়ে আমাদের কিছু বলেননি। আমরাই তাকে বিদেশে পাঠাতে চাই। কারণ এখানেতো চিকিৎসা হচ্ছে না। বরং দিনে দিনে তার স্বাস্থ্যের অবস্থা আরো খারাপ হচ্ছে। খালেদা জিয়া জামিন পেলেই উন্নত চিকিৎসার জন্য আমরা তাকে বিদেশ পাঠাবো।
একই সঙ্গে খালেদা জিয়া ন্যায় বিচার পাওয়ার বিষয়টি তার পরিবারের সদস্যেদের কাছে ব্যক্ত করেছেন।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শাসুদ্দিন দিদার। সম্পাদনা : সারোয়ার