১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:৪০

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট মেনে নেয়া উচিত হয়নি : পাপন

আগে থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে আলোচনায় না গিয়ে হুট করে গত ২১ অক্টোবর ১১ দফা দাবি নিয়ে ধর্মঘট করে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এই দাবি না মানা পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট বজর্ন করেছে তারা। সামনে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভারত সফর। এই সময়ে ক্রিকেট বর্জন করা দেশের ক্রিকেটের অনেক ক্ষতি হতো। যেকারণে ক্রিকেটারদের সঙ্গে বসে ৯দফা দাবি মেনে নিয়েছে বিসিবি। কিন্তু তাদের দাবি মেনে নেয়া উচিত হয়নি বলে মনে করেন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। দেশের জনপ্রিয় এক দৈনিকে সাক্ষাৎকারে এমন কথা জানান তিনি।

কয়েক দিন আগে ক্যাসিনো কাণ্ডের ঘটনায় জড়িয়ে গ্রেফতার কার হয় বিসিবির পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে। এই সমস্যা সমাধানের আগেই ক্রিকেটারদের এমন ঘটনা। এতে অবাক হয়েছেন বিসিবির বস। তিনি বলেন, বোর্ড পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়ার গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনা বুঝতে না-বুঝতেই আচমকা খেলোয়াড়দের ধর্মঘট! আমার এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না। আমি প্রতিদিনই ওদের (খেলোয়াড়দের) সঙ্গে কথা বলি। আগে থেকে কিছু না জানিয়ে খেলা বন্ধ, এটা কোনো দিন হতে পারে।’

পাপন বলেন, ‘আমি মনে করি ওদের দাবি পূরণ করে আমি একটা অন্যায় কাজ করেছি। কোনোভাবেই উচিত হয়নি মানা। আমাদের বলা উচিত ছিলো, যতক্ষণ পর্যন্ত তোমরা ধর্মঘট প্রত্যাহার না করবে আর বোর্ডে আবেদন না করবে, আমরা তোমাদের সঙ্গে বসবো না। আইসিসির বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কথা বলে আমি বুঝেছি, এটাই করা উচিত ছিলো। সংবাদমাধ্যম চাপে ফেলায় মেনে নিতে বাধ্য হয়েছি।’

ভারত সফরের আগে ধর্মঘট করায় ষড়যন্ত্র মনে করছেন পাপন। তিনি বলেন, ভারত সফরের এখনো আপনারা কিছুই দেখেননি। দেখেন না কী হয়। আমি যখন বলেছি, এটার মধ্যে একটা ষড়যন্ত্র আছে…। আপনারা আমাকে এতো বছর ধরে চেনেন, কখনো ভুল বা মিথ্যা বলেছি? এ রকম কথা যদি আমি বলে থাকি, নিশ্চয়ই এটার মধ্যে কিছু একটা আছে। আমার কাছে তথ্য ছিলো যে ভারত সিরিজ বানচাল হবে।’ সূত্র : প্রথম আলো