১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:৪২
শিরোনাম:

ক্রীড়াঙ্গনে শাসন ব্যবস্থার প্রতিফলন ঘটছে : মির্জা ফখরুল আলমগীর

বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে় দলের সিনিয়র নেতাদের যৌথ সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল আলমগীর ।

তিনি বলেন, সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের প্রতিভাবান ক্রিকেট খেলোয়াড়। যে ঘটনা ঘটেছে তা খুবই দুঃখজনক। আমরা আশা করবো এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবেনা। অতি দ্রুত তিনি আবার ক্রিকেট অঙ্গনে ফিরে আসবেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই ধরনের বিষয় গুলোতে অনেক ধরনের চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র থাকে। অত্যন্ত প্রতিভাবান খেলোয়াড়কে বিপদগ্রস্ত করবার ষড়যন্ত্র। এই বিষয়গুলো তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে। বেশি কিছু বলতে চাই না কারন আমার কাছে তথ্য নেই। তবে এ ধরনের ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে।

সামগ্রিক ভাবে ক্রীড়াঙ্গনে শাসনব্যবস্থা প্রতিফলন ঘটছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকার যেভাবে দেশ চালাচ্ছে এখানে জবাবদিহিতার কেউ নেই। প্রতিটি ফেডারেশনে অর্থ উপার্জনের ব্যবস্থা রয়েছে। কি করে অর্থ উপার্জন করা যায় সেই ব্যবস্থা হয়েছে দূর্নীতির মধ্য দিয়ে।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যেকটি ক্লাবে ক্যাসিনো চালায়। এ বিষয় গুলো কি ফেডারেশনের নজরে ছিলো না। ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড জানে না? জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ আছে তারা কি এই বিষয়টি জানে না? ক্রীড়ামন্ত্রী কি জানেন না? তাহলে এতোদিন এগুলো কীভাবে চললো? অর্থাৎ সরকারের আসলে শাসন নেই। প্রকৃত অর্থেই তারা ব্যর্থ। এবং এই দুঃশাসন ছাড়া তাদেরকে কোনো সুশাসন নেই এজন্যেই ধরণের ঘটনা।

খালেদা জিয়ার অসুস্থতার প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, বিএসএমএমইউ সংবাদ সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যে সারা দেশবাসী আতঙ্কিত। সবাই বলছে তাদের উদ্দেশ্যটা কি? দেশ নেত্রীকে কি তারা মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিতে চায়।

দেশ পুরোপুরিভাবে নতজানু হয়ে পড়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১০ লক্ষ রোহিঙ্গা বিষয়ে যে কূটনৈতিক উদ্যোগ দরকার, তা সরকার নিতে পারিনি। গত দুই বছরে একজন রোহিঙ্গাকেও তারা তাদের দেশে ফেরত পাঠাতে পারেনি। আমরা অত্যন্ত আতঙ্কের সাথে লক্ষ্য করছি, ভারতের বিভিন্ন রাজ্য গুলোতে বাংলাদেশী বলে সে দেশ থেকে মানুষ গুলোকে বিতাড়িত করার হুমকি দিচ্ছে। আসামে ১৮ লাখ মানুষকে বলা হচ্ছে তারা বাংলাদেশ থেকে আসছে। সম্পাদনা : এইচ