১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৪:৫৩
শিরোনাম:

বিদেশে যে টাকা পাচার হয়েছে তা দিয়ে পাঁচটা পদ্মা সেতু হতো : মির্জা ফখরুল

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে তরিকুল ইসলাম স্মৃতি সংসদের আয়োজিত স্মরণসভায় তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বর্তমান সরকার অত্যন্ত সচেতনভাবে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করেছে, এখন গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করছে।একদিকে বিচার ব্যবস্থা ধ্বংস করেছে, প্রশাসন ধ্বংস করেছে, অন্যদিকে গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। মানুষের সমস্ত অধিকারকে হরণ করা হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিরোধী রাজনীতিকে ধ্বংস করার জন্য সরকার সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে। ২৬ লাখ মানুষকে আসামি করেছে। অনেক মানুষকে গুম করে দিয়েছে। হাজারের বেশি মানুষকে তারা পঙ্গু করে দিয়েছে। সর্বশেষে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে গত ২৯ তারিখ রাতে ক্ষমতা দখল করে দিয়েছে। আজকে সমগ্র দেশে যে নির্যাতন-নিপীড়ন, তা অনেক সময় মনে হয় ১৯৭১ সালের পাকিস্তানি নির্যাতন কেউ ছাড়িয়ে গিয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশের মানুষের আস্থা রয়েছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপরে, তাই তাকে আটকে রাখা হয়েছে। আমরা যদি তরিকুল ইসলাম ও সাদেক হোসেন খোকার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চাই তাহলে অবশ্যই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আমাদের মুক্ত করতে হবে। তাই, বেগম জিয়াকে মুক্তি, নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন, এবং একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করে নির্বাচন করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করাই আমাদের লক্ষ্য। আসুন সে লক্ষ্যে আমরা সবাই আত্মত্যাগ করি।