১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৫:৫০

মাদক দেশ ও সমাজকে ধ্বংস করে, বললেন খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, যারা মাদক গ্রহণ করে তারা আমাদের শত্রু। মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স। দুর্নীতিবাজ ও জঙ্গীবাদ সমাজের শত্রু। আমরা মাদক খাবো না বা খেতে দিবোনা। কাউকে মাদক গ্রহণ বা ব্যবসার সাথে জড়িত থাকলে বর্ডার গার্ড কাংলাদেশ (বিজিবি) জানাবো।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় বর্ডার গার্ড কাংলাদেশ (বিজিবি-১৬) মাদকদ্রব্য ধ্বংস ও আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, শুধু দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন না, মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করার ইচ্ছা শক্তিও থাকতে হবে। নওগাঁর সীমান্তে ভারতের ৫টি চৌকি আছে। আর আমাদের বিজিবি সদস্যরা অন্ধকারে জঙ্গল ও পানির ভেতর দিয়ে যাতায়াত করতে হয়। সীমান্তে বিজিবিদের যাতায়াতদের সুবিধা ও আলোকিত করতে সোলার সিস্টেমের ব্যবস্থার জন্য প্রজেক্ট পাঠানো হয়েছে। যাতে সীমান্তে মাদক ও চোরাচালান কমে যায়।

নওগাঁ ১৬-বিজিব অধিনায়ক লে. কর্ণেল একেএম আরিফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী সদর দপ্তর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ বলেন বিপিএম, ১৪-বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল জাহিদ হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) ফারজানা হোসেন, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক একেএম বেদারুল ইসলাম, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সোহরাওয়ার্দী হোসেন, সীমান্ত পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রসুল সাকলায়েনসহ অন্যান্যরা। এসময় জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও বিজিবি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।