৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ২:৪৮

‘পুলিশ কারও শত্রু নয়’জনগনের বন্দু’ প্রয়োজনে ট্রাফিক পুলিশের গায়ে সিসি ক্যামেরা রাখার ব্যবস্থা করা হবে

—খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি ড. খঃ মহিদ উদ্দিন

নইন আবু নাঈম, বাগেরহাট প্রতিনিধি ঃ বাগেরহাটের ফকিরহাটে দশটি জেলার পুলিশ ও শ্রমিকদের নিয়ে ট্রাফিক সচেতনতামুলক সপ্তাহ ও প্রসিকিউসান এন্ড ফাইন প্রেমেন্ট সিষ্টেম সফটওয়ারের শুভ উদ্বোধন করেন খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি ড. খঃ মহিদ উদ্দিন।সোমবার দুপুরে শহীদ স্মৃতি ডিগ্রী মহাবিদ্যায় মাঠে বাগেরহাট রেজ্ঞ ডিআই জি অফিসের আয়োজনে বাগেরহাটের সুযোগ্য পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে ড. খঃ মহিদ উদ্দিন বলেন, বর্তমান সরকার ডিজিটাল পদ্ধতিতে সড়কে নিরাপতœার জন্য ট্রাফিক পুলিশের গায়ে সিসি ক্যামেরা রাখার ব্যবস্থা করেছে।পুলিশ কার শত্রু
নয়।চালকদের নিরাপতœা ও সড়কে হয়রানিসহ অনিয়ম দূর্নীতি প্রতিরোধে বর্তমান সরকার আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে।তারই ধারাবাহিকতায় সড়কে যাববাহন চালকদের হয়রানি প্রতিরোধে ডিজিটাল পদ্ধতিতে মামলা ও জরিমানা আদায়ে ই-ট্রাফিক
প্রসিকিউসান এন্ড ফাইন প্রেমেন্ট সিষ্টেম সফটওয়ার উদ্বোধন করা হয়েছে।তিনি খুলনা বিভাগের দশ জেলার পুলিশ সুপারদের উদ্দেশ্যে বলেন,সড়কে হেলমেট ছাড়া কাউকে উঠতে দিবেন না।সড়ক দূর্ঘটনায় যার হারায় সেই জানে হারানোর কি যন্ত্রনা।তাই তিনি সড়ক আইন মেনে চলার জন্য সকলকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি আব্দুর রহমান বক্স ই-পেমেন্টের মাধ্যমে জরিমানা প্রদান করার পদ্ধতি চালু করায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন,সড়কের নিরাপতœা আইন সম্পর্ক কেউ বিভ্রান্তি ছড়াবেন না।আমরা সচেতন হলেই দেশ এগিয়ে যাবে।নতুন আইন সম্পর্কে আমাদের দাবী সরকারকে জানান হয়েছে।প্রশাষন আমাদের শত্রু নয়।যানবাহনের চালক শ্রমিকদের নিরাপতœার ও আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে বর্তমান জনবান্ধব সরকার সবই জানেন।তাঁর উপর আমরা ভরসা রাখতে পারি। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,অতিরিক্ত ডিআজি (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) এ কে এম নাহিদুল ইসলাম,রুপসা-বাগেরহাট বাস

মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম মন্টু, বাগেরহাট জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি রেজাউর রমহান মন্টু,বাগেরহাট প্রেস ক্লাবের সভাপতি আহাদ উদ্দিন হায়দার,খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস,এম হাবিবুর রহমান,ইউসিবি মোবাইল ব্যংকিং এর পক্ষ থেকে এসইভিপি এন্ড হেড অব এমএফএস ডিভিশন অফিসার এটিএম তাহমিদুজ্জামন প্রমুখ।এ অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগের দশটি জেলার পুলিশ সুপার,খুলনা এস,এম শফিউল্লাহ,সাতক্ষীরা এস,এম,মোস্তাফিজুর
রহমান,যশোর মইনুল হক,ঝিনাইদহ মো: হাসানুজ্জামান,মাগুরা খান মোহাম্মদ রোজোয়ান,নড়াইল মোহাম্মাদ জসিম উদ্দিন,কুষ্টিয়া এস,এম,তানভীর আরাফাত,চুয়াডাংগা মো: জাহিদুল ইসলাম,মেহেরপুর এস,এম,মুরাদ আলি,খুলনা আর,আর,এফ কমান্ড্যান্ট মোছা:তাসলিমা খাতুন,পুলিশ সুপার পিটিসি খুলনা শুল্কা সাহা,বাগেরহাট জেলা পুলিশিং কমিটির সভাপতি এ্যাড: এম,ডি, মোজাফ্ধসঢ়;ফার হোসেন,বাগেরহাট প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্জ এ,বাকী তালুকদারসহ,মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক,সাংবাদিক বৃন্দ ও পরিবহন শ্রমিকনেতাকর্মীসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগন উপস্থিত ছিলেন।]