১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:৪৮
শিরোনাম:

সংবাদিকদের সংগঠন ডিআরইউ’র নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

ঢাকায় কর্মরত বিভিন্ন দৈনিকসহ টেলিভিশন অনলাইন ও রেডিওতে কর্মরত ১হাজার ৬৩৫ জন পেশাদার রিপোর্টার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট প্রয়োগ করবেন। কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে সকাল ৯টা থেকে। আজ শনিবার (৩০ নভেম্বর) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়।

সাংবাদিক সংগঠনের নির্বাচনের জন্য গঠিত পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন নিউজ টুডের সাবেক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ। অন্য সদস্যরা হলেন বিএফইউজের সাবেক সভাপতি এম শাহজাহান মিয়া, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের, সাংবাদিক নেতা এম এ আজিজ। ২০২০ সাল মেয়াদের এ নির্বাচনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ২১টি পদের মধ্যে ৪টি সম্পাদকীয় পদে ৪জন একক প্রার্থী থাকায় তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ১৭টি পদের বিপরীতে ৩৪জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে থাকলেও শেষ মুহূর্তে সভাপতি পদে রাজু আহমেদ ও শামসুল হক বসুনিয়া ব্যক্তিগতভাবে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন।

এবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন, অর্থ সম্পাদক জিয়াউল হক সবুজ, নারী সম্পাদক রীতা নাহার, কল্যাণ সম্পাদক খালিদ সাইফুল্লাহ, আপ্যায়ণ সম্পাদক এইচ এম আকতার। সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন, ডিআরইউর সাবেক সহ সভাপতি ও ইংরেজী দৈনিক ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম আজাদ, বিবার্তা টুয়েন্টিফোরের বিশেষ প্রতিনিধি শাহনেওয়াজ দুলাল ও দৈনিক আজকালের খবর পত্রিকার প্রধান প্রতিবেদক শরিফুল ইসলাম বিলু। সহ-সভাপতি পদে রাশেদুল হক, ওসমান গণি বাবুল ও নজরুল কবির। সাধারণ সম্পাদক পদে যে ৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন তারা সবাই এর আগে বিভিন্ন মেয়াদে ডিআরইউ’র সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তারা হলেন- রিয়াজ চৌধুরী, নূরুল ইসলাম হাসিব ও শেখ মুহাম্মদ জামাল হোসাইন (শেখ জামাল)।

যুগ্ম সম্পাদক পদে দু’জন প্রার্থী হলেন- দৈনিক জাগরণের মেহদী আজাদ মাসুম ও ডেইলি স্টারের হেলিমুল আলম বিপ্লব। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে দু’জন প্রার্থী হলেন- দৈনিক ইনকিলাবের মাইনুল হাসান সোহেল ও দৈনিক সময়ের আলোর হাবীব রহমান। এছাড়া, দপ্তর সম্পাদক পদে মো. জাফর ইকবাল ও জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে আব্দুল হাই তুহিন ও মাইদুর রহমান রুবেল। তথ্যপ্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক পদে সাখাওয়াত হোসেন সুমন ও জান্নাতুল ফেরদৌসী মানু। ক্রীড়া সম্পাদক পদে মাকসুদা লিসা ও মো. মজিবর রহমান। সাংস্কৃতি সম্পাদক পদে মিজান চৌধুরী ও এমদাদুল হক খান প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন।

৭টি কার্যনির্বাহী সদস্য পদের বিপরিতে ৯জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন। তারা হলেন- আমান উদ দৌলা, মঈনুল আহসান, আহমেদ মুশফিকা নাজনিন, আহমেদ সিরাজ, কামরুজ্জামান বাবলু, এম মুরাদ হোসেন, ইমরান হাসান মজুমদার, এসএম মিজান ও সায়ীদ আব্দুল মালিক।