১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৪:২০
শিরোনাম:

গাছের ডালে পুকুর মাঠঘাটে শুধু লাশ আর লাশ

নইন আবু নাঈম, বাগেরহাট ঃ দশ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের সাইরেন বাজছে। আতঙ্কে আশ্রয়কেন্দ্রে ছুঁটছে সবাই। এরই মধ্যে শুরু হয়ে যায় প্রলয়ঙ্করি ঘূর্ণিঝড়। মুহূর্তেই ল-ভ- করে দেয় সবকিছু। লাশ ঝুলছে গাছের ডালে আছে। পুকুর, মাঠঘাটে শুধু লাশ আর লাশ। উদ্ধার কর্মীরা নেমে পড়েছে লাশ উদ্ধারে। এলাকজুড়ে শুধুুই স্বজন হারাদের হাহাকার। সবখানেই কান্নার রোল। এটি একটি প্রতিকী ঝড়ের বর্ণনা। শুক্রবার বিকেলে বাগেরহাটের শরণখোলায় ঘূর্ণিঝড়ের মাঠ মহড়ায় প্রতিকী ঝড়ের এই দৃশ্যগুলো
বাস্তবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। উপকূলের মানুষের মাঝে দুর্যোগ সচেতনতা সৃষ্টিতে ব্র্যাকের অর্থায়নে এবং সিপিপির কারিগরি সহয়োগীতায় রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাইস্কুল মাঠে বিকেল সাড়ে তিনটা থেকে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত এই মাঠ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।
এখানে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের একটি গ্রামকে বোঝানো হয়েছে।

সেই গ্রামে ঝড়ের পূর্ব ও পরবর্তী চিত্র যেমন, ঝড়ের পূর্ভাবাস জানানো, আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া, উদ্ধার কাজ, ত্রাণ বিতরণ, সরকারের প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা কি সবই বাস্তবতায় রূপ দেওয়া হয় এই মহড়ার মাধ্যমে। উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা শিশু থেকে শুরু করে সকল বয়সী হাজার হাজার নারী-পুরুষ এই মাঠ মহড়া দেখার জন্য ছুঁটে আসে।
মাঠ মহড়ায় উপস্থিত ছিলেন শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সরদার মোস্তফা শাহিন, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. ফরিদা ইয়াসমিন, দূর্যোগ ব্যাবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের পরিচালক (অপারেশন) মো..নূর ইসলাম খান অসি, সিপিপির বরিশাল জোনের উপ-পরিচালক আ. রশিদ, সিপিপি’র সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল লতিফ, রায়েন্দা ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান মিলন ও ব্র্যাকের সেক্টর স্পেশালিষ্ট বিথুন মজিদ।