২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১০:৫৯
শিরোনাম:

ছাত্রদলে যোগদানের অভিযোগ তোলায় এজিএস সাদ্দামকে ধুয়ে দিলেন ভিপি নুর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর ছাত্রদলে যোগ দেওয়ার জন্য তদবির করছেন বলে এজিএস ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন যে অভিযোগ করেছেন তা নিয়ে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন ভিপি নুর।

সাদ্দামের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করে রবিবার বিকালে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন ভিপি নুর। সেখানে সাদ্দাম হোসেনের কড়া সমালোচনা করেন। তাকে অসুস্থ দাবি এবং তার বক্তব্য ‘পাগলের প্রলাপ’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এর আগে, সংবাদ সম্মেলনে এজিএস সাদ্দাম বলেন, তিনি (ভিপি নুর) রাজনৈতিক ক্যারিয়ার গড়া নিয়ে ব্যস্ত। মৌলবাদী রাজনৈতিক দোসরদের সাথে তার সখ্যতা। সাম্প্রতিককালে আমরা দেখছি ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে বিবাহিতদের পদায়নের দাবিতে তিনি লড়ছেন। ছাত্রদলের কমিটিতে পদ পাওয়ার লবিং তৎপরতায় ব্যস্ত সময়ও পার করছেন তিনি।

সাদ্দাম আরও বলেন, ডাকসুর বিভিন্ন বিষয়, মিটিং সমন্বয় করার দায়িত্ব ডাকসু ভিপির। কিন্তু তিনি যদি নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত থাকেন, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সময় না দেন, তবে তার জন্য তো ডাকসুর কাজ থেমে থাকবে না।

সাদ্দামের ওই বক্তব্যের জবাবে ভিপি নুর বলেন, ডাকসুর ভিপি এ পরিচয়ই আমার যথেষ্ট। তিনি সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি। ছাত্রদল বা ছাত্রলীগের পরিচয় তার লাগবে না। আর এটি লাগেও না। ডাকসু ভিপি পরিচয় এটিই তার জন্য যথেষ্ট। তিনি বলেন, এটি আসলে তাদের প্রোপাগান্ডা। এটি তারা শুরু থেকেই চালাচ্ছে। আমাদের জনপ্রিয়তায় তারা ইর্ষান্বিত হয়ে আগেই এ রকম প্রোপাগান্ডা চালিয়েছে।

সাদ্দামের মানসিক সুস্থতা নিয়েও প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, সাদ্দাম অসুস্থ ছিলেন। মানসিকভাবে নানা টেনশনে আছেন। এখনও মানসিক ভাবে সুস্থ হতে পারেননি। একজন ছাত্র প্রতিনিধি হয়ে সাত বছর ফেল করে এখনও অনার্সের দরজা পার হতে পারেননি। তার মুখ থেকে এ ধরনের বেফাঁস কথাবার্তা আসাটা অস্বাভাবিক কিছু নয়।

ভিপি নুর বলেন, তারা বলেছে, জামায়াত-শিবির ও বিএনপির উসকানিতে আমরা আন্দোলন করি। আমরা কারও এজেন্ডা নিয়ে ডাকসুতে আসিনি। এগুলো তাদের অনেক আগে থেকেই অভিযোগ। এটিকে আমরা পাগলের প্রলাপ ছাড়া ভালো মানুষের কথা বলে আখ্যায়িত করছি না।

সংবাদ সম্মেলনে এক নারী সাংবাদিক নুরের কাছে জানতে চান ডাকসুর এজিএস অভিযোগ করেছেন আপনি খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য কাজ করছেন; কিন্তু ডাকসুতে কোনো কাজই করছেন না। এ বিষয়ে আপনার বক্তব্য কী?

জবাবে নুর বলেন, দেখুন আজও আপনারা এসে দেখেছেন তারা যখন প্রেস কনফারেন্স করে তখন আমি আমার ডাকসুর রুমে ছিলাম। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে র‌্যালি ছিল, তাতে আমি জয়েন করেছি। আমাকে যেখানে ডাকা হয় আমি কিন্তু সেখানে যাই। যে প্রোগ্রামে আমাকে ইনভাইট করা হয় সেখানে আমি যাই।

”আসলে তারা একটা দুর্বলতা বা মনস্ততাত্ত্বিক দুর্বলতা বা সমস্যায় ভোগে যে আমরা মনে হয় ছাত্রলীগের জায়গা নিয়ে নিচ্ছে। সেই কারণে তারা নানাভাবেই চাই আমাদেরকে শিক্ষার্থীদের থেকে দূরে রাখতে। যে কারণে একের সময় একের রকম মিথ্যা, গুজব ও প্রপোগান্ডা ছড়ায়।”

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে কবে আমি আন্দোলন করেছি, সে বিষয়ে সাংবাদিকদের খোঁজ করার আহ্বান জানিয়ে ভিপি নুর বলেন, যে এ ধরনের প্রোপাগান্ডা ছড়িয়েছে, তাকে জিজ্ঞাসা করেন সে সুস্থ কিনা। তার কাছে জিজ্ঞাসা করুন কবে কোন তারিখে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন করেছি। এগুলো আসলে পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়।