১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:২২

‘নাড়ি’র সম্পর্কের পর ‘নারী’র সম্পর্কও হয়ে গেল: সৃজিত

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সম্পন্ন হয়েছে সৃজিত-মিথিলার বিয়ে। সৃজিত মুখার্জী কলকাতার খ্যাতনামা নির্মাতা। আর মিথিলা বাংলাদেশি মডেল-অভিনেত্রী। দক্ষিণ কলকাতার লেক গার্ডেনে ঘরোয়া অনুষ্ঠানে তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি করা হয়।

বিয়ের পর গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন সৃজিত। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সাথে নাড়ীর সম্পর্ক তো আগেই ছিল। কারণ আমার আদি বাড়ি বাংলাদেশের বিক্রমপুর ও ময়মনসিংহে- মায়ের দিক ও বাবার দিক দিয়ে। এখন বিয়ের মাধ্যমে নারীর সম্পর্কও হয়ে গেল। ‘ড়’ টা (নাড়ী) এখন ‘র’ (নারী) হয়ে গেল। ভালো লাগছে খুব।’’

সৃজিত মুখার্জী বলেন, আমি এটা নিয়ে আলাদা করে কিছু ভাবিনি। সত্যি বলতে সেখানে এত বন্ধু আছেন, আমি যখনই ওখানে যাই এতটাই আপন করে নেন মানুষ, ওটা যে (বাংলাদেশ) আলাদা দেশ- এটা কখনই আমার মধ্যে প্রভাব ফেলেনি। এবং ভাষাও এক। আমাদের বাড়িতে ছোটবেলা থেকেই বাঙাল ভাষায় লোকে কথা বলে, যদিও আমি মোহনবাগানের সাপোর্টার। সব কিছু মিলে ওই পরিবেশেই বড় হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ভাষা, খাওয়া থেকে শুরু করে শুঁটকি মাছের গন্ধ থেকে শুরু করে সব কিছুর সাথেই ছোটবেলা থেকে পরিচিত। বাংলাদেশ আলাদা দেশ এটা কখনো মনে হয়নি। উল্লেখ্য, আজ শনিবার মধুচন্দ্রিমায় সুইজারল্যান্ড যাচ্ছেন সৃজিলা-মিথিলা। সেখানে মধুচন্দ্রিমার পাশাপাশি জেনেভায় একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মিথিলা পিএইচডির রেজিস্ট্রেশন করবেন। সব মিলিয়ে সুইজারল্যান্ডে এক সপ্তাহ থাকবেন তাঁরা।