৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:০৯
শিরোনাম:

টিভির পর্দায় আসছে ‘মাই এক্স গার্লফ্রেন্ড’

টেলিভিশনের পর্দায় আসতে চলেছে মেজবাহ শিকদার নির্মিত ‘মাই এক্স গার্লফ্রেন্ড’ নামের একটি টেলিফিল্ম। এতে ইরফান সাজ্জাদের এক্স গার্লফ্রেন্ডের ভূমিকায় দেখা যাবে আজমেরি হক বাঁধনকে।

টেলিফিল্ম গল্পের শুরুতে দেখা যাবে পাঁচ বছর পর ইরফান সাজ্জাদের সাথে তার এক্স গার্লফ্রেন্ডের দেখা হয়। এতে তারা দুজনেই খুব অবাক হন।

ইরফান তাকে গাড়িতে লিভ দিতে চাইলে বাঁধন তাতে রাজি হন। গাড়িতে দুজনে পাশাপাশি বসে আলাপচারিতায় পুরনো অনেক স্মৃতি উঠে আসে।

তাদের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় দায়ী ছিলেন বাঁধন। তিনি কিছু না বলেই অন্য একজনকে বিয়ে করে বসেন। ইরফান সাজ্জাদ সেই কারণ খুঁজতে থাকেন। কিন্তু কিছুতেই কারণ বলতে চান না বাঁধন। কিন্তু নাছোড়বান্দা সাজ্জাদের অনুরোধের কাছে হার মানেন বাঁধন। তিনি অবশেষে জানান, তিনি যাকে বিয়ে করেছিলেন, তার সাথে এখন তার ডিভোর্স হয়ে গেছে।

সে এখন সিঙ্গেল। সে সঙ্গে সাজ্জাদকে ছেড়ে যাওয়াটা তার জীবনের সবথেকে বড় ভুল ছিল এবয় সেই ভুলের মাশুল এখনো বাঁধন দিচ্ছেন বলেও স্বীকার করেন।

বাঁধন বলেন, ‘আমাদের বাস্তব জীবনে বিভিন্ন ভুল হয়। কিন্তু কিছু কিছু ভুল আমাদের জীবনটাকে এলোমেলো করে দেয়। আর সেই ভুলের মাশুল সারা জীবন দিতে হয়। তেমনি এক ভুল করেছিলাম আমি।’ রোমান্টিক জীবনের টানাপোড়েনের এমনই এক গল্প নিয়ে টেলিফিল্মটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন মেজবাহ শিকদার।

২০০৮ থেকে নিয়মিত নাটক ও টেলিফিল্ম পরিচালনা করে আসছেন মেজবা শিকদার। এখন পর্যন্ত ৬০টির বেশি নাটক ও টেলিফিল্ম পরিচালনা করেছেন তিনি। নাটক রচনা করেছেন ৫০টির বেশি যার প্রায় সবগুলোই দর্শকপ্রিয় হয়েছে।

তার নাটক ও টেলিফিল্ম এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিলম্বিত টিকেট, এবং খেলা, সোনালী দিন, বিবর্ণতা, নিয়তির খেলা, বিবর্ণ ভালবাসা, গোধূলির কোণে দেখা আলো, হঠাৎ একদিন, নিয়তির লেখা, টার্গেট, অন্তহীন অপেক্ষা, শেষ বেলার কাব্য, আমার একলা আকাশ, অন্য বসন্ত, না বলা কথা, একমুঠো রোদ্দুর, একমুঠো স্বপ্ন, অপ্রত্যাশিত রাত ও এক্স গার্লফ্রেন্ড।

‘মাই এক্স গার্লফ্রেন্ড’ নিয়ে পরিচালক মেজবাহ শিকদার বলেন, ‘মাই এক্স গার্লফ্রেন্ড সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের একটি গল্প। এই গল্পটি সব শ্রেণীর মানুষের অনেক ভালো লাগবে বলে আমার বিশ্বাস। যারা এই গল্পটি দেখতে, সবাই টেলিফিল্মটি ভালো বলবে বলে আমি আশাবাদী।

টেলিফিল্মটি খুব শীঘ্রই একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেল এবং ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার করা হবে।