২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ভোর ৫:৫৬
শিরোনাম:

৩২ বছর পর বন্ধুর দেখা ঈদ পূর্ণমিলন

নেয়ামুল হক নয়ন গজারিয়া প্রতিনিধি,
আবেগ অনুভূতি বন্ধুত্বের বন্ধনে আবদ্ধ চিরোচিত এক বন্ধন।
হা তেমনই এক মিলন মেলায় একত্রিত হল ৩২ বছর পর মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার সকল বিদ্যালয়ের এসএসসি ৯২ ব্যাচের সকল বন্ধুরা।
প্রায় তিন যুগ পর একে অপরকে পেয়ে বুকে জড়িয়ে নিয়ে অস্ত্রশিক্ত নয়নে নিঃশব্দে তাকিয়ে গভীর সম্পর্কের মায়াবী এক দৃশ্যের অবতারণা পরিলক্ষিত হয়।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন বালুয়াকান্দি ইউনিয়নে মেঘনা ভিলেজে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গজারিয়া এসএসসি ৯২ পূর্ণ মিলনী অনুষ্ঠান।
অবনীয় ভাবে মার্চ ২০২৪ হঠাৎ করে আমাকে ফোন দেয় হোসেন্দী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের বন্ধু মনিরুল হক মিঠু, গজারিয়া উপজেলার ৯২ ব্যাচের সকল বন্ধুদের একত্রিত করার অভিমত প্রকাশ করে আরেক বন্ধু কামাল হোসেন কে দিয়ে কথা বলায়। আমিও বন্ধুর অভিমতে সায়দিয়ে  ২১ শে মার্চ রমজানে প্রথম পর্যায়ে ইফতারির দাওয়াতে অর্ধশতাধিক বন্ধুর উপস্থিতিতে পূর্ণমিলনীর আশা-আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নে একবাক্যে প্রকাশ করে।
উপজেলার গজারিয়া সরকারি পাইলট হাই স্কুলের নেয়ামুল হক নয়ন ও মাহতাব, বাউসিয়া এম এ আজহার উচ্চ বিদ্যালয়ের  ফেরদৌস আহমেদ, ভাটের চর দে এ মান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ের তোফাজ্জল হোসেন সরকার ও ফজলুল হক নয়ন, ভবেরচর ওয়াজের আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের  দুলাল মিয়া, হোসেন্দী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের কামাল ও নাজমুল হাসান, বাগাইয়া কান্দি কলিমুল্লা উচ্চ বিদ্যালয়ের বন্ধু মিজানুর রহমান ও রুহুল আমিনকে এডমিন করে সোশ্যাল মিডিয়ায় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ করে বন্ধুদেরকে যোগাযোগের সেতু তৈরি করা হয় ।
চূড়ান্ত দিন তারিখ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এডমিন বন্ধুদের নিয়ে কয়েকবার আলোচনা সভায় পূর্ণমিলনীর সময় নির্ধারণ করা হয়।
সকল বিদ্যালয়ের বন্ধুদের নির্দিষ্ট ফরম পূরণের আইডি নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন শুরু হলে ব্যাপক সারা পড়ে যায়। বন্ধুদের ইচ্ছা আগ্রহ কবে ২৭শে এপ্রিল কবে আসবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আনন্দ উল্লাস  ও অভিনন্দনের ব্যাপক ঝর ওঠে।
তারই পরিপ্রেক্ষিতে সাঁতাশে এপ্রিল মাহেন্দ্রক্ষণে একত্রিত হওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়।
আমন্ত্রিত বন্ধুদের স্মরণীয় করে রাখার জন্য নামাঙ্কিত  খোচিত মগ, টি শার্ট, বই ক্ষুদ্র উপহার হিসেবে প্রদান করার জন্য কয়েকজন বন্ধুর সদিচ্ছার মতামত সাদরে গ্রহণ করা হয়।
মিলন মেলায় বন্ধুদের উপস্থিতি যেন বলে দেয় আমাদের সম্পর্কের গভীরতার মাপকাঠি কতটুকু গভীর। সকাল ১০ ঘটিকায় কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হলে অনুষ্ঠান সূচির ধারাবাহিকতায় বন্ধু অ্যাডভোকেট সোহেলের উপস্থাপনায় বন্ধুদের নাম, পরিচয়, পেশা জানার আগ্রহ নিয়ে যায় গভীর সম্পর্কে অনন্য উচ্চতায়।
৩২ বছর পর বন্ধুদের উপস্থিতির মিলনমেলায় কন্ঠে বেরিয়ে আসে সেই অতীতের মধুর সম্পর্কের গভীর ভালোবাসার গল্প।
মধুর গল্পে দুপুর পেরিয়ে আবেগ অনুভূতি সুস্থ সাংস্কৃতিক বন্ধুদের পরিবেশনায় মনমুগ্ধকর হৃদয়ে বন্ধুত্বের গান উপভোগে হারিয়ে যায় নাচের তালে তালে।
রেফেল ড্র ও পুরস্কার বিতরণ শুরু হলে বন্ধুদের আনন্দ উল্লাস সেই ছোটবেলায় নিয়ে যায়।
বন্ধুত্বের বন্ধন অটুট থাকুক এই স্লোগান সামনে রেখে সংগঠনটির ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ও দিকনির্দেশনা দিয়ে সমাপনী বক্তব্য রাখেন বন্ধু মনিরুল হক মিঠু।